স্মার্টফোন মার্কেট এর সেরা ১৫ টি স্মার্টফোন , ফোন কেনার আগে যা দেখা জরুরী ।

top 10 smartphones , smartphone ranking , best smartphones ranking , top 15 smartphones in smartphones market , top 15 best smartphones , apple smartphones , iphone 6s tips

আসুন দেখে নেই বর্তমান স্মার্টফোন বাজার এর টপ রাঙ্কিং কয়েকটি স্মার্টফোন , ফোন কেনার আগে যা দেখে ফোন কিনা দরকার । আসুন দেখে নেই টপ কয়েকটি ব্র্যান্ড এর ফ্ল্যাগশিপ স্মার্ট ফোন ।

এ ছারাও আপনার কোন স্মার্ট ফোন এই রাঙ্কিং এ আসার উপযুক্ত বলে মনে হলে কমেন্ট করুন , আমারা অ্যাড করে দিবো ।

তোহ চলুন দেখে নেই স্মার্টফোন মার্কেট এর সেরা ১৫ টি স্মার্টফোন

১. স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৬/ স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৬ এজ

স্মার্টফোনের বাজারে দিন দিন বাড়ছে প্রতিযোগিতা। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বদলে যাচ্ছে কোরিয়ান এই প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান। স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৬ তুলনামূলক কম দামে পাওয়া গেলেও এস৬ এজ এগিয়ে আছে এর ডিজাইনের কারণে।

এস৬ এজ মডেলে রয়েছে ডুয়েল এজ ডিসপ্লে। সেটটির দুই পাশেই রয়েছে মেটাল ফ্রেম ও গরিলা গ্লাস। সামনে রয়েছে সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে প্যানেল।

দুটি হ্যান্ডসেটেই রয়েছে ৫ দশমিক ১ ইঞ্চির ডিসপ্লে। দুটি সেটই অত্যন্ত দ্রুতগতির। দুটোতেই রয়েছে এক্সিনোস অক্টা-কোর চিপসেট এবং ৩ জিবি র‍্যাম। রয়েছে ওয়্যারলেস চার্জিং। ৩২, ৬৪ ও ১২৮ জিবির তিনটি আলাদা স্টোরেজ ভার্সন থাকলেও নেই আলাদা মাইক্রোএসডি কার্ডস্লট।

রিয়ার ক্যামেরা দুটো ফোনেরই ১৬ মেগাপিক্সেল ও ফ্রন্ট ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল। স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৬-এর দাম ৪৭৯ ইউরো এবং স্যামসাং গ্যালাক্সি ৬ এজের দাম ৫৪৯ ইউরো।

galaxy s6

 

২. অ্যাপল আইফোন ৬এস

অ্যাপলের স্মার্টফোনগুলোর মধ্যে আইফোন ৬এস এগিয়ে আছে এর আকর্ষণীয় ডিজাইনের কারণে। এই সেটের মাধ্যমেই প্রেশার সেন্সিটিভিটি ডিসপ্লে নিয়ে আসে অ্যাপল। এতে রয়েছে ৪ দশমিক ৭ ইঞ্চির ডিসপ্লে। ১২ মেগাপিক্সেল রিয়ার ও ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। রিয়ার ক্যামেরা দিয়ে ফোরকে ভিডিও ধারণ করা যাবে। আছে ২ জিবি র‍্যাম এবং ১৬, ৬৪ ও ১২৮ জিবির আলাদা তিনটি স্টোরেজ ভার্সন। তবে ব্যাটারি ভোগাবে, সেটটির ব্যাটারি মাত্র ১৭১৫ এমএএইচ-এর। সেটটির দাম ৫৩৯ ইউরো।

1450681065

 

৩. নেক্সাস ৬পি

নেক্সাস ৫এক্স মডেলের পরপরই বাজারে ছাড়া হয়েছিল নেক্সাস ৬পি স্মার্টফোনটি। এটি তৈরি করেছে চীনা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে। এই হ্যান্ডসেটটির ফুল মেটাল বডি একে আকর্ষণীয় করে তুলেছে। এর ডিসপ্লে ৫ দশমিক ৭ ইঞ্চি। নেক্সাস ৬পিতে রয়েছে অত্যাধুনিক ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার। আছে ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট, যা দ্রুতগতির ফাইল ট্রান্সফার ও চার্জিংয়ের সুবিধা দেবে। এ বছরের সেপ্টেম্বরে সেটটি বাজারে ছাড়া হয়। এতে রয়েছে ১২ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ও ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। ৩ জিবি র‍্যাম এবং ৩২, ৬৪ ও ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজের তিনটি আলাদা ভার্সন। রয়েছে ৩৪৫০ এমএএইচ-এর শক্তিশালী ব্যাটারি। এর অপারেটিং সিস্টেম অ্যানড্রয়েড ৬.০ মার্শম্যালো। নেক্সাস ৬পি হ্যান্ডসেটটির দাম ৪৪৯ ইউরো।

nexus 6p

৪. ওয়ানপ্লাস ২

স্মার্টফোন নির্মাতা চীনা প্রতিষ্ঠান ওয়ানপ্লাসের তৈরি স্মার্টফোন ওয়ানপ্লাস ২। এটি চলবে অক্সিজেন অপারেটিং সিস্টেমে। এ ছাড়া রয়েছে অ্যানড্রয়েড অপারেটিংয়ে চালিত আরেকটি ভার্সন। ৩৩০০ এমএএইচ-এর ব্যাটারি দীর্ঘ সময় চার্জ ধরে রাখবে স্মার্টফোনটিতে। এতে রয়েছে ৫ দশমিক ৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে। রিয়ার ক্যামেরা রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেলের এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেলের। স্মার্টফোনটির দুটি ভার্সন রয়েছে। একটিতে রয়েছে ৩ জিবি র‍্যাম ও ১৬ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। আরেকটিতে রয়েছে ৪ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবির ইন্টারনাল স্টোরেজ। এর দাম ২৩৯ ইউরো। দামের তুলনায় স্মার্টফোনটির স্পেসিফিকেশন বেশ ভালো।

 

৫. স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৬ এজ প্লাস

এ বছরের অন্যতম আকাঙ্ক্ষিত সেট এটি। এই ফ্যাবলেটে রয়েছে ৫ দশমিক ৭ ইঞ্চির বড় ডিসপ্লে। এ বছরের আগস্টে বাজারে ছাড়া হয় সেটটি। এতে রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ও ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। ৪ জিবি র‍্যামের সঙ্গে রয়েছে ৩২ ও ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজের দুটি আলাদা ভার্সন। ব্যাটারি ৩০০০ এমএএইচ। এর দাম ৬২৯ ইউরো।

৬. অ্যাপল আইফোন ৬এস প্লাস

অ্যাপল আইফোন ৬এস প্লাস স্মার্টফোনটিতে রয়েছে থ্রিডি টাচ ডিসপ্লে। ৫ দশমিক ৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি ডিসপ্লে। এই সেটটিতে রয়েছে ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন। আরো আছে ফোরকে ভিডিও ক্যাপচার এবং লাইভ ফটোস। এতে রয়েছে ১২ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ও ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। ২ জিবি র‍্যামের সঙ্গে আছে ১৬, ৬৪, ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজের তিনটি আলাদা ভার্সন। এ বছরের সেপ্টেম্বরে বাজারে আসা হ্যান্ডসেটটির ব্যাটারি ২৭৫০ এমএএইচ। এর দাম ৬১৯ ইউরো।

৭. নেক্সাস ৫এক্স

নেক্সাস ৫-এর উত্তরসূরি হিসেবে এ বছরের অক্টোবরে বাজারে আসে নেক্সাস ৫এক্স স্মার্টফোনটি। এর দাম মাত্র ৩৩৯ ইউরো। স্মার্টফোনটি অ্যানড্রয়েড মার্শম্যালো ৬.০ অপারেটিং সিস্টেমে চলে। এর রিয়ার প্যানেলে রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার। ৫ দশমিক ২ ইঞ্চি স্ক্রিনের সেটটিতে রয়েছে ১২ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ও ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। আছে ২ জিবি র‍্যাম এবং ১৬ ও ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজের দুটি আলাদা ভার্সন। ব্যাটারি ২৭০০ এমএএইচ।

৮. এলজি জি৪

এলজি জি৪-এ রয়েছে দুর্দান্ত ক্যামেরা। এতে রয়েছে ৫ দশমিক ৫ ইঞ্চির ডিসপ্লে। ফোন ও ট্যাবলেটের সংমিশ্রণে তৈরি এই স্মার্টফোনকে বলা হচ্ছে ফ্যাবলেট। এ বছরের এপ্রিলে বাজারে ছাড়া হয়েছিল সেটটি। এল জি৪-এ রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ও ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। আছে ৩ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। ব্যাটারি রয়েছে ৩০০০ এমএএইচ-এর। এর দাম ৪১৯ ইউরো।

৯. হুয়াওয়ে মেট এস

হুয়াওয়ের এ বছরের সবচেয়ে ভালো স্মার্টফোন বলা হচ্ছে ‘মেট এস’-কে। যেকোনো ফ্ল্যাগশিপের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে সক্ষম এই ফ্ল্যাগশিপ। এতে রয়েছে ৫ দশমিক ৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে (১৯২০ x ১০৮০ পিক্সেল)। ১৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ও ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। ৩ জিবি র‍্যামের সঙ্গে ৩২, ৬৪ ও ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজের তিনটি আলাদা ভার্সন রয়েছে। ব্যাটারি রয়েছে ২৭০০ এমএএইচ। এর দাম ৪৬৯ ইউরো।

১০. মটোরোলা মটো এক্স প্লে

এ বছরের আগস্টে বাজারে ছাড়া হয় স্মার্টফোনটি। দীর্ঘ ব্যাটারি লাইফের জন্য সেটটি জনপ্রিয়তা পায়। মটো এক্স প্লে স্মার্টফোনে রয়েছে ৩৬৩০ এমএএইচ-এর ব্যাটারি। তবে এর দুর্বল দিক হচ্ছে, এতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার নেই। ২১ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামরা ও ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে এতে। ২ জিবি র‍্যামের এই সেটটিতে ১৬ ও ৩২ জিবি ইন্টারনাল মেমোরির দুটি আলাদা ভার্সন রয়েছে।

১১. ব্ল্যাকবেরি প্রিভ

স্মার্টফোন নির্মাতা কানাডীয় প্রতিষ্ঠান ব্ল্যাকবেরির প্রথম অ্যানড্রয়েড হ্যান্ডসেটের নাম ব্ল্যাকবেরি প্রিভ। মজার ব্যাপার হচ্ছে, এটি একটি স্লাইড ফোন এবং হ্যান্ডসেটটিতে রয়েছে ডুয়েল কিপ্যাড। এতে রয়েছে ৫ দশমিক ৪ ইঞ্চি ডিসপ্লে, যার নিচেই রয়েছে একটি কোয়ার্টি কিপ্যাড। স্লাইড করলে কিপ্যাডটি চলে আসবে। প্রিভে রয়েছে ১৮ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা ও ২ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। ৩ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ সমৃদ্ধ সেটটির ব্যাটারি ৩৪১০ এমএএইচ। গত অক্টোবরে বাজারে ছাড়া হয় ব্ল্যাকবেরি প্রিভ। এর দাম ৫৫৯ ইউরো।

১২. মটোরোলা মটো জি (থার্ড জেনারেশন)

২০১৩ সালে মটোরোলার নতুন সিরিজ মটো জি চালু করা হয়। এর পর থেকেই ব্যবহারকারীদের আগ্রহের শীর্ষে রয়েছে এই সিরিজের বিভিন্ন স্মার্টফোন। মটো জি (থার্ড জেনারেশন) সেটটি বাজারে ছাড়া হয় এ বছরের জুলাইতে। এতে রয়েছে পাঁচ ইঞ্চি স্ক্রিন। ১৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ও ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। স্মার্টফোনটির দুটি ভার্সন বাজারে রয়েছে, যার একটিতে রয়েছে ২ জিবি র‍্যাম ও ১৬ জিবি রম, আরেকটি ৩ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি রম। এতে আছে ২৪৭০ এমএএইচ-এর ব্যাটারি। এর দাম ১৫৯ ইউরো।

১৩. সনি এক্সপেরিয়া জেড৫

সনির ফ্ল্যাগশিপ এই সেট বাজারে ছাড়া হয়েছিল গত সেপ্টেম্বরে। ৫ দশমিক ২ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই স্মার্টফোনটিতে ২৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা ও ৫ দশমিক ১ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে। ৩ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজের এই সেটটিতে রয়েছে ২৯০০ এমএএইচ-এর ব্যাটারি। সেটটির দাম ৬৯৯ ইউরো।

১৪. হুয়াওয়ে অনার ৭

হুয়াওয়ের অনার সিরিজের বেশ কয়েকটি সেট রয়েছে। এর মধ্যে অনার ৭ সেটটি ব্যবহারকারীদের নজর কাড়তে সক্ষম হয়েছে। এতে রয়েছে ৫ দশমিক ২ ইঞ্চি ডিসপ্লে। সেটটির রিয়ার প্যানেলে রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার। রিয়ার ক্যামেরা ২০ মেগাপিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেলের। ৩ জিবি র‍্যামের এই সেটিটতে ৩২ ও ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজের দুটি ভার্সন রয়েছে। এর ব্যাটারি ৩১০০ এমএএইচ। এর দাম ২৫০ ইউরো।

১৫. এইচটিসি ওয়ান এম৯ প্লাস

এইচটিসি ওয়ান এম৯ বাজারে ছাড়ার পর সবচেয়ে বেশি সমালোচিত হয়েছিল এর ক্যামেরা পারফরম্যান্সের জন্য। সেটা তড়িঘড়ি করে কাটিয়ে উঠতে কয়েক মাস পরেই এইচটিসি বাজারে ছাড়ে সেটটির আরেকটি উন্নত সংস্করণ এইচটিসি ওয়ান এম৯ প্লাস।

৫ দশমিক ২ ইঞ্চির বড় ডিসপ্লের এই সেটে রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। ২০ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা এবং ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। ৩ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। ২৮৪০ এমএএইচ এর ব্যাটারি। এর দাম ৫৭৯ ইউরো।

Updated: January 11, 2016 — 8:34 pm

1 Comment

Add a Comment
  1. Eliyas Ahmed Miah

    Galaxy S6 এর বর্তমান বাজারদর জানা থাকলে জানাবেন দয়া করে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Copyright SmartZoneBD © 2013-2016, All Rights Reserved.